শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন

আলু নিয়ে আলুবাজী; মানছে না সরকারের বেঁধে দেওয়া দাম

মোঃ আককাস আলী, নওগাঁ প্রতিনিধি
  • Update Time : বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০

সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে দফায় দফায় আলুর দাম নির্ধারণ করেও নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে না বাজার। দাম নিয়ে খুচরা ব্যবসায়ীরা পাইকারদের এবং পাইকারি ব্যবসায়ীরা কোল্ডস্টোরেজ মালিকদের দোষারোপ করছেন। দুই দফায় আলুর দাম নির্ধারণ করেও নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না বাজার। এই মাসের শুরুতে হঠাৎ করেই আলুর দাম বেড়ে যায়। ১৮-২০ টাকার আলু এক লাফে ৫০ টাকায় বিক্রি শুরু হয়। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা শুরু হলে সরকার আলুর দাম নির্ধারণ করে দেয়।

গত ১৪ অক্টোবর প্রথম দফা আলুর দাম নির্ধারণ করে দেয় সরকার। তিন পর্যায়ে এই দাম নির্ধারণ করা হয়। কেজিপ্রতি খুচরা পর্যায়ে ৩০, পাইকারিতে ২৫ ও হিমাগার থেকে ২৩ টাকা। দাম নির্ধারণের পর কৃষি বিপণন অধিদফতর থেকে দেশের সব জেলা প্রশাসককে এই ব্যাপারে চিঠি দেয়া হয়। কিন্তু আলু ব্যবসায়ীরা এই সিদ্ধান্ত মোটেই গ্রাহ্য করেনি। আলু তারা ৫০ টাকা কেজিতে বিক্রিই অব্যাহত রাখে। এই পরিস্থিতিতে গত ২১ অক্টোবর দ্বিতীয় দফায় আবারো আলুর দাম নির্ধারণ করে সরকার। ভোক্তা পর্যায়ে কেজিতে ৫০ টাক কমিয়ে খুচরামূল্য নির্ধারণ করা হয় কেজি ৩৫ টাকা। সেই ক্ষেত্রে পাইকারি পর্যায়ে ৩০ টাকা এবং কোল্ডস্টোরেজে ২৭ টাকা কেজি নির্ধারণ করা হয়। আলুর দাম পুনঃনির্ধারণের পর তিন দিন চলে গেছে, কিন্তু বাজারে সেই ৫০ টাকাই কেজি বিক্রি হচ্ছে আলু। কোথাও কোথাও কেজি ৪৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে, তবে তার মান কিছুটা খারাপ।

গতকাল জেলার বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে একই চিত্র। সচেতনদের দাবী, পাইকারি ও খুচরা বাজারের আগে কোল্ডস্টোরেজগুলোতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা। কোল্ডস্টোরেজ মালিকরা সিন্ডিকেট করে বাজারে আলু কম সরবরাহ করছে বলেও অভিযোগ করেন তারা। অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি সরকার নির্ধারিত দাম বাজারে কার্যকর করতে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান সচেতন মহল।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com