বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন

শেষ হলো প্রচার-প্রচারণা, অপেক্ষা ভোট গ্রহণের

কল্লোল রায়:
  • Update Time : শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০

আগামী ২৮ ডিসেম্বর প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত হবে কুড়িগ্রাম পৌরসভায় নির্বাচন। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) রাত ৮টার পর থেকে শেষ হলো নির্বাচনে অংশগ্রহনকারী প্রার্থীদের সকল ধরনের প্রচার প্রচারণা। শেষ মুহুর্তের প্রচারনায় নিজেদের পক্ষে জয় ছিনিয়ে নিতে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা ছুটেছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। ভোটাররাও এলাকার উন্নয়নে প্রার্থী বাছাই নিয়ে করছেন চুলছেড়া বিশ্লেষন।

নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগের কাজিউল ইসলাম নৌকা প্রতীকে, বিএনপি শফিকুল ইসলাম বেবু ধানের শীষ, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের আব্দুল মজিদ হাতপাখা মাকার্য়, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক নারকেল গাছ মার্কায় এবং সাইদুল হাসান দুলাল জগ মার্কা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। আবু বকর সিদ্দিক জেলা বিএনপি’র সহসভাপতি হিসেবে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন। এদিকে সাইদুল হাসান দুলাল আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন।

৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। সকল প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারনা চালিয়েছেন সমান তালে। এবারই প্রথম ইভিএম এ ভোট গ্রহনের সিদ্ধান্ত হওয়ায় ভোটারদের মাঝে রয়েছে নানান কৌতুহল তৈরি হয়েছে। ভোটারদের ইভিএমএ ভোট প্রদানের কৌশল জানাতে কেন্দ্রে কেন্দ্রে চলছে প্রশিক্ষনও। তবে ভোট সুষ্ঠ হলে শেষমেষ যোগ্য প্রার্থীকেই বেছে নেয়ার কথা জানান ভোটাররা।

আওয়ামীলীগ প্রার্থী কাজিউল ইসলাম জানান, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ভোটাররা নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে তাকে বিজয়ী করবেন। নিজের বিজয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদী তিনি। আর বিজয় হলে কুড়িগ্রাম পৌরসভার উন্নয়নে কাজ করবেন বলে জানান তিনি।

বিএনপি’র প্রার্থী শফিকুল ইসলাম বেবু জানান, নির্বাচন সুষ্ঠ হলে নিজের জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদি তিনি।

এ নির্বাচনে ২৪টি ভোট কেন্দ্রে ৫৬ হাজার ৩শ ৯৫ জন ভোটার ইভিএম এর মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রদান করবেন। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় কুড়িগ্রাম পৌরসভা। আর ১৫ বছর আগে প্রথম শ্রেণির পৌরসভায় উন্নিত হলেও এখনও বাড়েনি নাগরিক সেবার মান। তবে এবার ভোটাররা বলছেন পৌরসভার উন্নয়নে যোগ্য প্রাথর্ীকেই ভোট দিবেন তারা।

জেলা নির্বাচন অফিসার জাহাঙ্গীর আলম রাকিব জানান, নির্বাচন সুষ্ঠ করতে আইন শৃংখলা বাহিনীর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। ইভিএম এ ভোট গ্রহনের জন্য কেন্দ্রে কেন্দ্রে মক ভোটিং করা হয়েছে। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com