সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
ফুলবাড়ীতে কঠোর লকডাউন কার্যকরে কঠোর প্রশাসন ফুলবাড়ীতে তরুণদের উদ্যোগে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা চালু কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ৫শ দুস্থ্য পরিবার পেল ঈদ উপহার লালমনিরহাট পৌরবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, জনতার মেয়র রেজাউল করিম স্বপন ফুলবাড়ীতে কেটে নেয়া ধান গাছ থেকে ফের ধান উৎপাদন পঞ্চগড়ে নদী ভাঙ্গন রক্ষার দাবিতে স্থানীয়দের মানববন্ধন  জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা; সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগীরা ফুলবাড়ীতে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ সচ্ছলরা পেয়েছেন গৃহহীনদের ঘর, প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন উলিপুরে ১০ ছাত্রলীগ নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

তবকপুরে জমিজমা সংক্রান্ত জেরে বৃদ্ধাসহ আহত ৩; মামলা হওয়ায় বাদী ও স্বাক্ষীদের হুমকি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার তবকপুর তফশীপাড়া এলাকায় জমি- জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই পরিবারের ৩ জন মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়ে মুমুর্ষ অবস্থায় উলিপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ২৫ জানুয়ারী এ সংক্রান্ত একটি মামলা উলিপুর থানায় গৃহীত হয়েছে। মামলা নং – ২৪/ তাং ২৫-০১-২০২১খৃীঃ। বাদী পক্ষের অভিযোগ মামলা হওয়ার পরও বিবাদীরা তাদের ও স্বাক্ষীদের ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার ( ২১ জানুয়ারী) আনুমানিক বিকাল ৫ টায় প্রতিপক্ষ আবুল কালাম আজাদ গং সংঘবদ্ধ হয়ে সশস্ত্র আঘাতে ষাটোর্ধ বৃদ্ধা মোছাঃ সোনাভান বেগম (৬০) ও তার তৃতীয় পুত্র মোঃ শহিদুল ইসলাম (২৮) এবং স্বামী মোঃ মহির উদ্দীন (৬৭) কে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় রক্তাত্ত জখম করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহত দের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

বাদীর অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিপক্ষ একই এলাকার মৃত কলিম উদ্দীনের পুত্র আবুল কালাম আজাদ, আমীর হোসেন, আমীন উদ্দীন ও আমীন উদ্দীনের ছেলে মোখলেছুর রহমান ও আমীর হোসেনের ছেলে নুর আসাদ ও নুর মোহাম্মদ দীর্ঘদিন যাবত একটি সবজী চাষাবাদ জমির মাত্র ১ শতক জমির সীমানা দখল করতে হুমকি ধামকি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে আসছে ।ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার বিকেলে আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে আপন ভাই ভাতিজা ও ভাড়াটে লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বাড়ীর সামনের ঐ জমির দখল নিতে যায়। এতে সোনাভান বেগম এর বড় পুত্র মোঃ শফিকুল ইসলাম তাদের নিষেধ করতে গেলে বিবাদী পক্ষ তাকে কিল- ঘুষি মেরে ধাওয়া করে। শফিকুল ইসলাম প্রানভয়ে স্থানীয় আমিনুল ইসলামের বাড়ীতে আশ্রয় নিলে আবুল কালাম আজাদরা সেখানেও হামলার চেষ্ঠা করে।

ছেলে কে মারধোর করার খবরে শফিকুলের মা সোনাভান বেগম (৬০), বাবা মহির উদ্দীন( ৬৭) ভাই শহিদুল ইসলাম( ৩০) এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের মা ছেলে ও বাবা কে ঘিরে ধরে ধারালো অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে মাথা সহ সমস্ত শরীরে আঘাত করতে থাকে। এতে সোনাভান বেগম ও শহীদুল ইসলাম মাথায় মারাত্মক খুন জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়া পরে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, আহত মহির উদ্দীন কে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে বিশ্রামের পরামর্শ দিলেও স্ত্রী সোনাভান বেগম ও ছেলে শহীদুল ইসলাম উভয়ের মাথায় গুরুতর জখম হওয়ায় তাদের হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ বিবাদী পক্ষ হিংস্র ও দস্যু প্রকৃতির এবং ইতিপূর্বেও আবুল কালাম আজাদ তার প্রথম স্ত্রী কে নির্যাতন ও মারাত্মক আহত জখম করে বাড়ী ছারা করার এবং দুই অসুস্থ্য সন্তানের ভরন পোষন ও চিকিৎসার খরচ বহন না করে মানবেতর জীবন যাপনে বাধ্য করানোর অভিযোগ রয়েছে।

তবকুপুর ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার মানিক মিয়া ফোনে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বাদী পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হচ্ছে বিবাদী পক্ষ এলাকায় ত্রাস ও ভয়-ভীতি সৃষ্টি করে রেখেছে, ঘটনাটি সকলের সামনে ঘটলেও কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। প্রতিপক্ষের লোকজন ভূক্তভোগীদের আইনের আশ্রয়ে যেতে বা অভিযোগ দিতে বাধা নিষেধ করলেও স্থানীয় থানা বাদীর লিখিত অভিযোগ এজাহার হিসেবে আমলে নিয়ে মামলা রজু করেছে। আসামীদের কেউ গ্রেফতার হয়নি। আসামীদের কয়েকজন বিজ্ঞ আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

উলিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ কবীর বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে তদন্ত পূর্বক আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় ইতিমধ্যে মামলা রুজু করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে। বাদীদের হুমকি বা ভয়-ভীতি দেখানোর কোন অভিযোগ তিনি পাননি। বাদীদের নিরাপত্তা যাতে বিঘ্নিত না হয় সে বিষয়েও পুলিশ নজর রাখছে। বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখার আশ্বাস দেন তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com