সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
ফুলবাড়ীতে কঠোর লকডাউন কার্যকরে কঠোর প্রশাসন ফুলবাড়ীতে তরুণদের উদ্যোগে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা চালু কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ৫শ দুস্থ্য পরিবার পেল ঈদ উপহার লালমনিরহাট পৌরবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, জনতার মেয়র রেজাউল করিম স্বপন ফুলবাড়ীতে কেটে নেয়া ধান গাছ থেকে ফের ধান উৎপাদন পঞ্চগড়ে নদী ভাঙ্গন রক্ষার দাবিতে স্থানীয়দের মানববন্ধন  জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা; সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগীরা ফুলবাড়ীতে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ সচ্ছলরা পেয়েছেন গৃহহীনদের ঘর, প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন উলিপুরে ১০ ছাত্রলীগ নেতার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

ধর্মান্ত‌রিত হ‌য়ে বি‌য়ে, অপহর‌ণের মামলায় বাবা মা বা‌ড়ি ছাড়া

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১

কুড়িগ্রামে উলিপুর উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের মেয়ের প্রেমের বিয়েকে অপহরন দাবি করে মামলা দায়ের করেছেন বাবা। এ ঘটনায় ছেলের চাচা সহ আটক হয়েছেন ছেলের ফুপাতো ভাই। এছাড়াও কয়েকটি পরিবারের সদস্যরা গ্রেফতারের ভয়ে পালিয়ে বেরাচ্ছেন।

জানা যায়, উলিপুর উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের কামদেব এলাকার মৃতঃক্ষিতীশ চন্দ্র ঝাঁ এর মেয়ে দিপ্তি রানী ঝা (১৯) রাজাহাট উপজেলার বালাকান্দি ইউনিয়নের নলকাটা গ্রামের মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান দুলাল এর পুত্র আসাদুজ্জামান (২০) এর সাথে দীর্ঘদিন যাবত প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি মেয়ের পরিবারে জানাজানি হলে মেয়ের অবিভাবক তাদের সম্পর্ক মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানায়। এর জের ধরে হয়ে দিপ্তি রানী ঝা (১৯) গত ৮মার্চ কুড়িগ্রাম নোটারী পাবলিক কার্যালয়ে নিজের ধর্ম পরিবর্তন করে মোছাঃ সুমাইয়া বেগম হিসেবে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ পূর্বক আসাদূজ্জামানের সাথে দু’টি বিবাহের এফিডেভিড সম্পাদন করে। ঘটনাটি মেয়ের পরিবারের কানে পৌঁছালে দিপ্তি রানী ঝা ওরফে সুমাইয়াকে হুমকি দিতে থাকে এবং দিপ্তি তার বাড়ী থেকে বের হয়ে এসে আসাদূজ্জামান কে ঘরে তুলে নিতে চাপ দিতে থাকে। এরপর তারা আত্নগোপন করে।

এদিকে মেয়ের পরিবার আসসদুজ্জামানের চাচা আহম্মদ আলিকে মোবাইলে বিষয়টি পারিবারিক আপোষ করে দিতে অনুরোধ জানায়। এরপর দিপ্তি এবং আসাদুজ্জামান মিলে ঢাকার গাজীপুরে গত ১৬ মার্চ মুসলিম শরিয়তে বিবাহ রেজিস্ট্রশন করে তাদের ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে বিবাহের সকল প্রামানাদির এর কপি এবং দুজনে মিলে ভিডিও বার্তা প্রদান করে যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

অপরদিকে গত ২০ মার্চ মেয়ের পিতা ঘটনাটি ১৩ মার্চ উল্লেখ করে উলিপুর থানায় আসাদুজ্জামান সহ আরও ৯ জনের নামে অপহরণ মামলা দায়ের করে। এ মামলায় ছেলের চাচা হরিফিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার আহম্মদ আলী সহ ছেলের এক ফুপাতো ভাই রাশেদকে আটক করে পুলিশ।

মামলার ঘটনায় বিষয়টি আরও ঘোলাটে হওয়ায় দিপ্তি এবং আসাদুজ্জামান উভয় পরিবারের সাথে তাদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

মামলায় হয়রানির স্বীকার পরিবারের সদস্যরা জানায়,’ছেলে মেয়ে উভয়ের প্রাপ্তবয়স্ক। তারা নিজেদের সিন্ধান্তে বিয়ে করেছে। এক্ষেত্রে পরিবারের কোন ইন্ধন ছিলোনা। ঘটনার অনেক পরে আমাদের হয়রানির উদ্দেশ্যেই মামলা করা হয়েছে।’ এছাড়াও ঘটনার পর আসাদুজ্জামান ও সুমাইয়ার সাথে কোন যোগাযোগ নেই বলেও দাবী করে পরিবারের সদস্যরা।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com