শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন

ধরলার পাড়ে নদী ভাঙন থেকে বাঁচার আকুতি

কুুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
  • Update Time : শনিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২১

“হামাকগুল্যাক নদীর ভাঙন থাকি বাঁচান বাহে । গত কয়দিন থাকি নদী হামার সোগ খাইল । হামাক দেখার কাইও নাই বাহে ।” এভাবে নদীর ভাঙন থেকে বাঁচার আকুতি জানাচ্ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা সদরের মোগলবাসা ইউনিয়নের বাসিন্দা ইউনূস মিয়া(৬৫) । শনিবার(৩এপ্রিল) তার মতো কয়েকশো মানুষ একত্রিত হয়ে ধরলা নদীর তীরে দাঁড়িয়ে নদী ভাঙ্গন রোধের দাবী জানিয়েছেন।

কুড়িগ্রাম জেলা সদরের মোগলবাসা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর নামক স্থানের ধরলা নদীর পাড়ে শনিবার  বেলা ১১ টা থেকে টানা ৩ ঘন্টা ধরে কয়েক’শো স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্যোগে নদীর বাম তীর রক্ষার্থে ও ভাঙন থেকে বাঁচার আকুতি জানিয়ে দ্রুত বাঁধ নির্মানের দাবিতে  মানববন্ধন হয়েছে। মাববন্ধনে অংশ নেয়া ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো জানান,বিগত কয়েকদিনের ভাঙনে মসজিদ ,কৃষি জমি,ঈদগাহ মাঠ সহ কিছু স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে । ভাঙন প্রতিদিন আরো তীব্র হচ্ছে । দ্রুত পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে এই এলাকায় বাঁধ নির্মানের দাবি জানান তারা ।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া স্থানীয় বাসিন্দা মো. আমির ডাক্তার বলেন,” পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন কয়েকবার এসে ভাঙন কবলিত এলাকা ঘুরে দেখেছেন । কিন্তু আমরা এখন পর্যন্ত কোন কাজের অগ্রগতি দেখতে পাইনি । “প্রতিবাদী এই কর্মসূচিতে স্থানীয়দের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন,স্থানীয় কৃষক এনামুল,শাওন,ইয়াকুব আলী,নয়ারহাট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল করিম,কেরামত মেম্বার প্রমুখ ।

উল্লেখ- জেলা সদরের মোগলবাসা ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ ওর্যাডের বাসিন্দা এই অঞ্চলে বসবাস করছেন । এলাকার ভাঙন রোধে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে কয়েকবার এলাকা পরির্দশন করে বাঁধ নির্মানের জন্য গত বছরের নভেম্বরে ঢাকায় চিঠি দিয়ে প্রস্তাবনা পাঠানো হলেও এখন পর্যন্ত সেই কাজের অগ্রগতি দেখা যায় নি ।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com