সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
পঞ্চগড় পৌরসভা (৬ষ্ট তলা) সুপার মার্কেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন জোন ভিত্তিক লকডাউনে যাচ্ছে কুড়িগ্রাম লালমনিরহাটে ছাদ থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু কুড়িগ্রামে ১১’শ ভূমিহীন পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর নওগাঁয় সাংবাদিক আব্বাস আলীর উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন চাষিদের বিক্ষোভের মুখে হিমাগারের অতিরিক্ত ভাড়া প্রত্যাহার কাঁচিচরে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “বিবেক ২১”এর বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালন গোয়ালঘর থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার কুষ্টিয়ায় স্বামী-স্ত্রী ও ছেলেকে রাস্তায় গুলি করে হত্যা কুড়িগ্রামে মাসিক কল্যাণ সভায় টানা তৃতীয় বারের শ্রেষ্ঠ ওসি উলিপুর থানার ইমতিয়াজ কবীর

সি‌লে‌টে ভূ‌মিকম্প, হেলে পড়েছে দুটি ভবন

ডেস্ক রিপোর্টঃ
  • Update Time : রবিবার, ৩০ মে, ২০২১

সিলেটে দফায় দফায় ভূমিকম্পে নগরীর ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পাঠানটুলা এলাকায় দুটি ছয়তলা ভবন একে অপরের ওপর হেলে পড়েছে। এ অবস্থায় দুটি ভবনের বাসিন্দাদের অন্যত্র সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সিটি করপোরেশন (সিসিক) ও পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, শনিবার (২৯ মে) কয়েক ঘণ্টার মধ্যে চারবার ভূমিকম্প হওয়ায় পাঠানটুলার দর্জিবাড়ি পল্লবীর ব্লক-সি-১৬ ও একই এলাকার ব্লক বি-০৩-এর ভবন দুটি প্রায় দুই ফুট হেলে যায়।

রোববার (৩০ মে) দুপুরে দমকল বাহিনীর একটি দল পাঠানটুলার ওই দুটি ভবন পরিদর্শন করে। এর আগে শনিবার রাতে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও মহানগর পুলিশের উত্তর বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার আজবাহার শেখসহ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ভবন দুটি পরিদর্শন করেন।

সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলোর ব্যাপারে সিটি করপোরেশন অভিযান শুরু করবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা অনুসারে কাজ করবে সিসিক। দুর্যোগ পরিস্থিতিতে নিজস্ব কন্ট্রোল রুম খুলেছি আমরা। এ পরিস্থিতিতে সিলেট মহানগরে ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে গঠন করা হয়েছে বিশেষ সেল। কন্ট্রোল রুমের হটলাইন নম্বর হলো (০১৯১১-২৪৯৬৯৯)।

তিনি বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় সরকারের দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী জরুরি ভিত্তিতে সিলেটের সব প্রশাসন, দফতর ও সেবা সংস্থায় নিজ নিজ কন্ট্রোল রুম খুলতে এবং আগামী সাত দিনের জন্য সিটি করপোরেশনসহ সব জরুরি সেবা সংস্থা, সহযোগী সব দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, বিশেষ করে ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, স্বাস্থ্যসেবা খাত এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবকদের প্রস্তুত থাকার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, সিসিকের ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলরদের নেতৃত্বে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় প্রশিক্ষিত স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে দুর্যোগ পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেই সঙ্গে সব সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিককে দুর্যোগকালীন চিকিৎসাসেবা দান নিশ্চিতে প্রস্তুতি গ্রহণের অনুরোধ করা হয়েছে।

সিলেট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার এসএম হুমায়ুন কারনাইন বলেন, সিলেট শহরটাই ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকা। এজন্য শনিবার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে চারবার ভূমিকম্প হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমরা প্রস্তুত রয়েছি। ইতোমধ্যে আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

হেলে পড়া দুটি ভবনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের কাজ উদ্ধার ও নিরাপত্তার। হেলে পড়া দুটি ভবনের বিষয়ে প্রকৌশল বিভাগ বলতে পারবে; তারা ব্যবস্থা নেবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com