বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৬:৪৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:

সচ্ছলরা পেয়েছেন গৃহহীনদের ঘর, প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
  • Update Time : সোমবার, ১৯ জুলাই, ২০২১

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর বরাদ্দে অনিয়ম ও সচ্ছল পরিবারের লোকজনকে ঘর দেওয়ার অভিযোগ এনে প্রকৃত গৃহীনদের ঘর দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সোমবার (১৯ জুলাই) দুপুরে পাঁচগাছি ইউনিয়নের শতাধিক নারী-পুরুষ কুড়িগ্রাম শহরে এসে প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপি এ মানববন্ধন করেন। এসময় তারা সচ্ছল পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে ঘর ফেরত নিয়ে প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ঘর বরাদ্দের দাবি জানান।

মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী পাঁচগাছী ইউনিয়নের বাসিন্দা আরিফ ইসলাম, নাসরিন বেগমসহ  অনেকে অভিযোগ করে বলেন, আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় কুড়িগ্রামের সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নে ১শ’টি ঘর নির্মান করা হয়। এসব ঘর উপকারভোগীদের মাঝে ইতোমধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। সরকারি এসব ঘরের উপকারভোগির তালিকায় অনেক সচ্ছল পরিবারের একাধিক সদস্য রয়েছে বলে দাবি করেন বক্তারা।

বক্তারা বলেন, ‘ গ্রামের একজন বিত্তশালী ও ভূমির মালিকের দুই মেয়ে ও দুই ছেলেসহ ওই ব্যাক্তির ২৭ জন নিকট আত্মীয়ের নামে ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ফলে ওই ইউনিয়নের প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষ প্রধানমন্ত্রীর এ মানবিক উপহার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।’ গ্রামের ওই ‘মাতব্বরের’ সাথে উপজেলা প্রশাসনের ‘নিবিড় যোগাযোগ’ রয়েছে আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ওই ব্যাক্তি তার পরিবারের লোকজন ও আত্মীয় স্বজনকে ঘর পাইয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন মানববন্ধনে অংশ নেওয়া এলাকাবাসী।
মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী পাঁচগাছি এলাকার বাসিন্দা আলমগীর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, তারা জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেও কোন ফল পাচ্ছেন না।’ ঘর বরাদ্দে অনিয়মের সকল তথ্য প্রমান তাদের কাছে রয়েছে এমন দাবি করে এই বাসিন্দা বলেন, ‘এ বিষয়ে তদন্ত করা হলে তারা সব তথ্য প্রমান উপস্থাপন করবেন।’

প্রসঙ্গত, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ধরলা অববাহিকায় পাঁচগাছী ইউনিয়নে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় প্রায় একশত ঘর বরাদ্দ দেয় স্থানীয় প্রশাসন। এসব ঘর বরাদ্দে একই পরিবারের একাধিক সদস্যকে ঘর প্রদানসহ অনেক সচ্ছল পরিবারকে ঘর প্রদানের অভিযোগ তোলে এলাকাবাসী। এনিয়ে সম্প্রতি তারা জেলা প্রশাসনসহ সরকারের উচ্চ মহলেও অভিযোগ প্রদান করেন।

তবে জেলা প্রশাসন ও সদর উপজেলা প্রশাসন এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে আসছে। জেলা প্রশাসন বলছে, অত্যন্ত স্বচ্ছতা ও নিয়মতান্ত্রিকভাবে প্রকৃত দরিদ্র ও ভূমিহীন পরিবারের মাঝেই এসব ঘর বিতরণ করা হয়েছে। মূলত বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টায় একটি মহল এসব বানোয়াট অভিযোগ তুলছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com