রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী এবং সরিষাবাড়ীবাসীর কাছে ক্ষমা চাইলেন মেয়র রুকন

মোঃ জহুরুল ইসলাম ভূঁইয়া, জামালপুর প্রতিনিধি
  • Update Time : সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০

নিজের ভুলের জন্য তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসান এমপি ও সরিষাবাড়ী পৌরবাসীর কাছে ক্ষমা চাইলেন নানা অনিয়ম-দুর্নীতি, অসদাচরণ, ক্ষমতার অপব্যবহার, স্বেচ্ছাচারিতা, মারমুখী আচরণসহ প্রভৃতি অভিযোগের কারণে ১ মে কাউন্সিলরদের দ্বারা অনাস্থাকৃত মেয়র রোকনুজ্জামান রুকন।

৪ অক্টোবর রাতে ফেসবুক লাইভে এসে ৪ আগস্ট তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান এমপি’কে আপত্তিকর, আক্রমণাত্মক, বিভ্রান্তিকর, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভীতি প্রদর্শনমূলক মন্তব্যের জন্য অনুতপ্ত প্রকাশ করে তিনি বলেন, “আমি জানি আমি যে ভুল করছি তা ক্ষমার অযোগ্য। সেদিন আমি মানসিকভাবে আপসেট ছিলাম, আমার মাথা ঠিক ছিলোনা কি বলতে কি বলে ফেলেছি, একজন রাজনৈতিক ব্যক্তি হিসেবে আমার এমন মন্তব্য করা ঠিক হয়নি। তারপরেও জাতির সূর্য সন্তান মাননীয় তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডাক্তার মুরাদ হাসান এমপি আমার কিংবা আমার পরিবারের প্রতি কোনরূপ প্রতিশোধমুলক ব্যবস্থা নেন নি। এজন্য আমি উনার নিকট চির কৃতজ্ঞ।

তিনি আরও বলেন, আসলে রাজনৈতিকভাবে আমার অনেক ভুল আছে। আমাকে আরও সচেতন হওয়া উচিত ছিল। আমি আবারও বলছি আমি যা করেছি তা ক্ষমার অযোগ্য। আমি তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসান এমপি, সরিষাবাড়ী পৌরবাসী, জামালপুর তথা দেশবাসীর নিকট হাতজোর করে ক্ষমা চাচ্ছি।”

এর আগে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা (আইসিটি) আইনে মামলা হয়। উপজেলা যুবলীগের সদস্য ছামিউল হক বাদী হয়ে এ মামলাটি করেন।

সকল কাউন্সিলরদের অনাস্থা ও দল থেকে বহিষ্কারের পর এলাকা ছেড়ে অজ্ঞাত স্থান থেকে মেয়র রোকন বিভিন্ন সময় ফেসবুক লাইভে এসে জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ী) আসনের এমপি ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসানকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগে এ মামলা করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 dainikjonokotha.com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com